ভাবছি আমি স্বাধীন হব।
– সগীর হোসাইন খান
২৮ বৈশাখ, ১৪২১
সর্বশেষ সম্পাদনা- ৫ ফালগুন ১৪২৩
১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭।

ভাবছি আমি স্বাধীন হব
মুক্ত পাখির মত,
এদেশ থেকে ওদেশ হয়ে
ঘুরব কত শত।
পরক্ষণেই আবার ভাবি
কোথায় পাখির দেশ?
মানুষ নামের অমানুষেরা
করছে যে বন শেষ।
গাছের শাখায় নেইকো আর
মুক্ত পাখির বাসা।
ভাবতে গিয়ে শেষ হয়ে যায়
স্বাধীন হওয়ার আশা।

ভাবছি আমি স্বাধীন হব
ছুটব হয়ে নদী
সবকিছুকেই ভাসিয়ে দিব
বাঁধ হয়ে যায় যদি।
পরক্ষণেই প্রশ্ন করি
কোথায় নদীর পানি?
যা আমাদের সভ্যতা
তাইতো নদীর শনি।
প্রশ্ন করে নিজের কাছেই
পাইনা খুঁজে আশা,
হয়না আমার নদী হয়ে
ধরার বুকে ভাসা।

ভাবছি আমি স্বাধীন হব,
হব মেঘের ভেলা,
নীল আকাশে রৌদ্র স্নানে
করবো মধুর খেলা।
আকাশ আছে নেইকো মেঘ
খা খা মাঠের বুক।
পানির খোঁজে যাচ্ছে শুকে
পাখ -পাখালির মুখ।
নীল আকাশের মেঘগুলো সব
কলের বিষে ঠাসা।
তাইনা দেখে যায় উবে মোর
স্বাধীন হবার আশা।

কেমন করে স্বাধীন হব?
উড়বো কেমন করে?
কেমন করে শ্বাষটা নিব?
হাসবো প্রাণটা ভরে?
প্রশ্ন আছে, নেইকো জবাব,
মানুষ নামের খুনি,
সবাই মিলে উন্নয়নের
ধ্বংসের জাল বুনি।
ভাবছি নাকো কারবোটা কি,
আকাশ সমান বাড়ি?
মুক্ত ভাবে ধরার বুকে
বাঁচতেই না পারি?

Advertisements