প্রকৃতির অবস্থা

– সগীর হোসাইন খান।

৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৩

Sun 22 May 2016

কালকে ছিল বৃষ্টি, তবে
আজ কেন ভাই রৌদ্রতাপ?
কাল হয়েছি কাক ভেজা,
আজকে পুড়া ছাই-কাবাব।

চারপাশটা করছে খেলা
করছে খুশী যাচ্ছে তাই,
এই যদি হয় রাত্রি-দিন
আমরা তবে কোন দিকে যাই?

সূর্যি মামা দেয় উঁকি দেয়,
একটু পরেই মুখটা ভার,
এই পাড়াটা জলে ভাসে,
এ পাড়াতে হাহাকার!

নদী নালা, খাল বিল সব,
শহর গড়ে সর্বনাশ,
ইট পাথরের জঙ্গলে
এখন সবার নাভিশ্বাস।

নেইকো পাহাড়, নেইকো গাছ,
মাঠ ঘাট সব চাছা-ছোলা,
যে পাড়াটায় বন ছিল,
আজকে সেথায় ক্ষ্যাত খোলা?

পুড়ছে মাটি, হচ্ছে ইট,
গড়ছে শহর আকাশ ছোঁঁয়া,
আকাশ বাতাস দিচ্ছে ভরে,
ইট-কয়লার কালো ধোয়া।

নেইকো সবুজ, নেইকো বন,
কি করে নেই শ্বাস, প্রশাস?
পাখ পাখালিরে নেইকো বাড়ি,
বনের পশু হচ্ছে লাশ।

যা খুশী তা করছি মোরা,
বসুন্ধরার অবস্থা,
তাই তো সে নিচ্ছে শোধ,
বদলে দিয়ে ব্যবস্থা।

বৃষ্টি বেলায় রৌদ্র তাপে,
পুড়তে হবে সারাটা দিন,
রৌদ্র বেলায় বৃষ্টি হবে,
গ্রাম জনপদ হবে লীন।

মানুষ তুমি, কিসের তোমার
এত এত অহংকার,
ধ্বংস যখন আনছ যেচে,
ভুগতে হবে তোমায় এবার।

Advertisements