ইচ্ছে

ফেব্রুয়ারি, ২০১২
দেখতে যদি না পাই তোমায় কাছ থেকে,
চন্দ্র হব আকাশ পানে আজ থেকে।
যে যাই বলুক তাকিয়ে রব মুখ পানে,
ভালো বাসার কইবো কথা কানেকানে।

ছুঁতে যদি না পাই তোমায় হাত দিয়ে,
জড়িয়ে নিবো তোমায় আমি জ্যোৎস্না দিয়ে।
তোমার দেহের উষ্ণতাতে সুখ নিবো।
ঝিরিঝিরি বাতাস হয়ে দোল দিবো।

কথা যদি বলতে আমি নাই পারি।
ঝি ঝি পোকা’র পাখায় চরে আসতে পারি।
বলবো আমার মনের কথা রাত করে,
বাসবো ভালো তোমায় আমি বুক ভরে।

ভেজা ঘাসে শিশির হয়ে ভোর বেলা,
চরণ তোমার ভিজিয়ে দিয়ে করবো খেলা।
আমায় পাবে মিষ্টি রোদে, শীত ভোরে,
আদর দিব তোমায় আমি গাল ধরে।

দেখতে যদি না পাই তোমায় ভেজা চুলে
বৃষ্টি হয়ে ঝড়বো আমি নদীর কূলে,
স্নান তুমি করবে যখন আচল খুলে,
চুলটা তোমার ছুঁয়ে দিবো ঢেউয়ে দুলে।

তোমার পথে পাখি যখন গাইবে গান,
বুঝবে আমার তোমায় দেখে নাচছে প্রাণ।
লতা পাতায় ফুটবে যখন রঙ্গিন ফুল,
বুঝবে আমি ছুয়ে গেছি তোমার চুল।

হাতটা তুমি ধরতে তোমার নাই দিলে,
নাহয় তুমি মুখটা তোমার লুকিয়ে নিলে।
তোমায় ছুবো শরতের কাশ হয়ে,
থাকবো আমি তোমার বুকের শ্বাস হয়ে।

আকাশ পানে ছুটবে যখন মেঘের খেয়া,
সব কিছুতে পাবে তুমি আমার ছোঁয়া।
তোমার কাছে আসবো আমি ভালবেসে।
আমায় তুমি আদর দিয়ে মিষ্টি হেসে।

– – – – – – – – – – – – – – – – – – – – – – – – – – –

টিকা: আলী ভাইয়ের সাথে পরিচয়ে সূত্র ধরে ২০০৬ সালে প্রথম তার প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠান ভোলার চরনোয়াবাদ, চৌমহনির “এম এ আলী প্রতিবন্ধী স্কুল” দেখতে যাই। তখন থেকেই সেই স্কুলের সাথে লেগে থাকা এবং স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করা।

২১১ সালে মাস্টার্স শেষ হলে আমার বন্ধু নজরুল ইসলাম সেখানে কাজে যোগদান করে। সেই সুবাধে ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারীতে একটা দীর্ঘ সময় সেখানে থাকা হয় আমার। সেই প্রতিবন্ধী স্কুলের শিক্ষীকা কৃষ্ণ কালো দীঘল চুলের মেয়ে মাসুমাকে প্রথম দেখাতেই ভাল লাগে। প্রেম ভালবাসার কথা বাদ দিয়ে সরাসরি বিয়ের কথা তুলতেই বন্ধু নজরুলকে অনুমতি দিয়েছিলাম। মেয়েটা রাজি থাকলেই পরিবারের কারণে শেষ পর্যন্ত আর ঘটনা আগাতে পারেনি।

কিন্তু যে দুইটা দিন একটা মেয়ে আমাকে বিয়ে করতে রাজি টাইপ অনুভূতি কাজ করছিল সেই কয়টা দিনে বেশ কয়েকটা কবিতা লিখে ফেলেছিলাম। এই কবিতাটা তাদের মধ্যে সেরা কবিতা।

Advertisements